1. admin@dhakareport.com : Dhakareport.com :
পঞ্চম দিনের শুরুতেই বাংলাদেশের দুই সাফল্য - Dhaka Report
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৪৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :

পঞ্চম দিনের শুরুতেই বাংলাদেশের দুই সাফল্য

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর, ২০২১
  • ১১ বার

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ২০২ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৫১ রানে উদ্বোধনী জুটি ভেঙেছে পাকিস্তানের। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন আবদুল্লাহ শফিক। তিনি ৭৩ রান করেছিলেন। এরপর দলীয় ২০ রান যোগ করার পরই ফিরে যান আগের ম্যাচে সেঞ্চুরি করা আবিদ আলী। তিনি ৯১ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

২০২ রানের লক্ষ্যে সফরকারীদের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১৭৬ রান। সিরিজের প্রথম টেস্ট জিততে তাদের প্রয়োজন আরও ২৬ রান। ক্রিজে আছেন বাবর আজম (৪) ও আজহার আলী (৬)।

আগের দিন পাকিস্তানকে ২০২ রানের লক্ষ্য দেয় বাংলাদেশ। চট্টগ্রামে এই লক্ষ্য তাড়ায় চতুর্থ দিন চা পানের বিরতির আগে থেকে এবং তৃতীয় সেশনের পুরোভাগেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলেছেন দুই ওপেনার আবিদ আলী ও আব্দুল্লাহ শফিক। হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন দুজনেই। পাশাপাশি দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি পার্টনারশিপের দেখা পেয়েছেন।
পঞ্চম দিনের সকালে দুই ওপেনারের শুরু দেখেও মনে হচ্ছিল বিনা উইকেটে জিতে যাবে পাকিস্তান। কিন্তু ৪৩তম ওভারে এই জুটি ভেঙেছেন মেহেদী মিরাজ। অভিষিক্ত আব্দুল্লাহ শফিককে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেন। শফিক রিভিউ নিলেও লাভ হয়নি। অভিষেক টেস্ট খেলতে নামা এই ওপেনার ফিরেছেন ৭৩ রান করে। তার ১২৯ বলের ইনিংসে ছিল ৮টি চার ও ১টি ছয়।

সঙ্গীর বিদায়ের পরেও সেঞ্চুরির পথে ছিলেন আবিদ আলী। চতুর্থ টেস্ট সেঞ্চুরি থেকে ৯ রান দূরে ছিলেন। তাকে সেঞ্চুরি বঞ্চিত করেছেন তাইজুল ইসলাম। এলবিডাব্লিউর ফাঁদে পড়ে রিভিউ নিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানেও সাফল্য মেলেনি। ১৪৮ বল খেলা আবিদের ইনিংসে ছিল ১২টি চার।

অথচ চট্টগ্রামে চতুর্থ দিনের সকালটা যেমন ছিল, সেখানে এই লক্ষ্যটাকেও অকল্পনীয় মনে হচ্ছিল। লিডটা চ্যালেঞ্জিং পজিশনে রাখা গেছে লিটন দাসের হাফসেঞ্চুরির কল্যাণে। অবশ্য বাংলাদেশকে রুখে রাখতে বড় ভূমিকা ছিল আগের দিন গতি ঝড় তোলা শাহীন আফ্রিদির। লিটনকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলেই লেজ ছেঁটে দিতে বড় ভূমিকা রেখেছেন। তার কারণে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশ গুটিয়ে গেছে ১৫৭ রানে।

গতকাল বিকালের শুরুর ধসটা নেমেছিল শাহীনের গতি-ঝড়ের কারণে। ৩৯ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ দিন শেষ করেছিল। চতুর্থ দিনও তার এই গতি-ঝড় লিডটাকে বেশি বাড়তে দেয়নি। ৩২ রানে ৫ উইকেট নিয়েছেন। তিনটি নেন অফস্পিনার সাজিদ, দুটি নেন হাসান আলী।

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরো সংবাদ