1. admin@dhakareport.com : Dhakareport.com :
১০০ প্রভাবশালীর একজন গাম্বিয়ার সেই বিচারমন্ত্রী - Dhaka Report
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
১৫০ দেশ ভ্রমণে বিশ্বের প্রথম মুসলিম নারী নাজমুন নাহার ওমিক্রন পরিস্থিতি খারাপ হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ আরব আমিরাতে নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু গাড়ি ভাঙচুর না করে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাঙ্গনে ফিরে যাবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর “ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট” অনুষ্ঠিত ৯ দেশের সঙ্গে ফ্লাইট স্থগিত করলো কুয়েত ১ ডিসেম্বর ‘মুক্তিযোদ্ধা দিবস’ রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি চাই : বাংলাদেশ ন্যাপ বিশ্বকাপের ভেন্যু আল বায়াতের উদ্বোধন শাহজালাল বিমানবন্দরের অ্যাপ্রোন এলাকায় বিমানের গাড়ির ধাক্কায় কাস্টমস কর্মকর্তা আহত খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে নিউ ইয়র্কে নাগরিক সমাবেশ

১০০ প্রভাবশালীর একজন গাম্বিয়ার সেই বিচারমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৬৪ বার

মার্কিন টাইম ম্যাগাজিনের বিচারে ২০২০ সালে পৃথিবীর ১০০ জন প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বদের তালিকায় জায়গা করে নিলেন রোহিঙ্গাদের পক্ষে লড়া গাম্বিয়ার সেই বিচারমন্ত্রী আবুবকর তাম্বাদু।

১০০ জন প্রভাবশালী ব্যক্তির তালিকায় রয়েছেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, কমলা হ্যারিস, জো বাইডেন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বলসোনারো, ভারতের দিল্লির শাহিনবাগের সেই প্রতিবাদী বিলকিস দাদিও আছেন।

৪৭ বছরের আবুবকর তাম্বাদু রুয়ান্ডা গণহত্যায় গঠিত আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে সাবেক কৌঁসুলি ছিলেন। এ ট্রাইব্যুনালে তিনি প্রসিকিউটরের বিশেষ সহকারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনিই এখন গাম্বিয়ার বিচারমন্ত্রী ও দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল।

২০১৮ সালে তিনি বাংলাদেশে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির পরিদর্শনে আসেন। সেখানে গণহত্যা থেকে বেঁচে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের কাছে শোনেন; রক্তহীম করা দুঃস্বপ্নের মতো অত্যাচার-নির্যাতনের বিবরণ। প্রভাবশালী দেশগুলো যখন মিয়ানমারের গণহত্যায় তথাকথিত নিন্দা-জ্ঞাপন করছে, তখন তাম্বাদু এবং তার গাম্বিয়া সরকার আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যা সংগঠনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছিল।

সেই মামলায় আংশিক জয় হয়েছে গাম্বিয়ার। চলতি ২০২০ সালের জানুয়ারিতেই মিয়ানমার এবং দেশটির নেত্রী অং সান সূ চি’ বিরুদ্ধে রায় দেন আইসিজে বিচারকদের প্যানেল। সূ চি’কে মিথ্যাচারী অভিহিত করে আদালত রোহিঙ্গাদের দমন-পীড়ন বন্ধে মিয়ানমারকে তার সব ক্ষমতা ব্যবহারের আদেশ দেন। একইসঙ্গে, অতীতের গণহত্যার ঘটনা আইসিজে’র অনুসন্ধানকারীরা তদন্ত করে দেখবে, বলেও রায়ে উল্লেখ করা হয়।

সূত্রঃ বাংলাদেশ প্রতিদিন

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরো সংবাদ




Shares