1. admin@dhakareport.com : Dhakareport.com :
শওকত হোসেনের মালেশিয়া প্রবাসির জন্য মানবিক পোস্ট - Dhaka Report
শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:১০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
বাংলাদেশিদের কাছে ইটের জবাবে পাথর খেয়ে পিছু হটেছে ভারতীয়রা! সুয়ারেজের সাথে চুক্তির ঘোষণা দিল এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ অর্থের অভাবে গৃহকর্মী রাখতে পারছেন না ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী! ১০০ প্রভাবশালীর একজন গাম্বিয়ার সেই বিচারমন্ত্রী ভারতসহ তিন দেশের নাগরিকদের সৌদি প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা সৌদি আরব যেতে প্রবাসীদের লাগবে স্মার্ট ফোন চট্টগ্রাম বন্দরে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে জীর্ণ ৩ কন্টেইনার, যেকোন মুহূর্তে বড় দুর্ঘটনা! স্বর্ণের দাম ভরিতে ২ হাজার ৪৪৯ টাকা কমলো,আজ থেকে কার্যকর বাংলাদেশী প্রবাসীদের ভিসা ও আকামার মেয়াদ বাড়াতে সম্মত হয়েছে সৌদি আরব : পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাটোরের সিংড়ায় হঠাৎ ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত ৩০ টি ঘরবাড়ি পবিত্র ওমরাহ চালু ৪ অক্টোবর

শওকত হোসেনের মালেশিয়া প্রবাসির জন্য মানবিক পোস্ট

Ripon Salahuddin
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭৬ বার

শওকত হোসেনের ফেসবুক প্রোফাইল থেকে নেওয়া ঢাকা রিপোর্ট পাঠকদের সুবিধার্থে হুবহু তুলে ধরা হলো: আমার এই পোষ্ট শুধু মালেশিয়া প্রবাসি ভাইদের জন্য — ?

নাম মিজানুর রহমান বয়স মাত্র ২১ বাবা আবুলখায়ের বৃদ্ধ ও অসুস্থ্য , মা নাছিমা আক্তার ৷ তিন ভাই এক বোন দরিদ্র পরিবার মিজান সবার ছোট সংসারের অভাব দূর করার জন্য ধার কর্জ করে ৪ লক্ষ বিশ হাজার টাকায় সূদুর মালেশিয়ায় পাড়ি দেয় ৷ সেখানে যাওয়ার পর মিজানের কাজ হয় গাড়ির তলা পরিস্কার ,আর বেতন নির্ধারন হয় বাংলাদেশি টাকায় ২৫ হাজার টাকা ৷

থাকা খাওয়ায় চলে যায় মিজানের প্রায় পনেরো হাজার টাকা আর দেশে পাঠায় প্রতি মাসে মাত্র ১০-১২ দশ থেকে বার হাজার টাকা মাত্র ৷ তিন বছরে সে দেশে পাঠায় দুই লক্ষ বিশ হাজার টাকা ,এখনো আরো দুই লক্ষ টাকা উঠানো বাকি যা দেশ থেকে যাওয়ার সময় কর্য করে রেখে গেছে ৷ আজ কয়েক মাস মিজান দেশে টাকা পাঠাতে পারছে না কারন তার পেটে গা হয়েছে এবং পায়খানার রাস্তা দিয়ে নিয়মিত রক্ত যাচ্ছে প্রচুর যন্ত্রনা করে ৷

ফলে সব টাকা দিয়ে ডাক্তার দেখিয়ে মিজান এখন সর্বসান্ত ব্যাথায় ও অসুস্থ্যতায় কাজ করতে না পারায় তার বেতন বন্ধ করে দিয়েছে মালিক ৷ আজ বেশকিছুদিন মিজান আমার হোয়াটসএপ্যে ভিডিও কল করে কান্নাকাটি করছে তাকে যেন আমি দেশে পাঠানোর ব্যাবস্থা করি না হলে তার মরা ছাড়া আর কোন উপায় নেই ৷ তখন তাকে আমি মালেশিয়ায় বাংলাদেশি দূতাবাসে যোগাযোগ করতে বলি তখন মিজান বলে তার কাছে বের হওয়ার মতও কোন পয়সা নেই ৷ তার একটাই আকুতি যে কোন ভাবে বাংলাদেশে আসলে হয়তো তার জীবনটা বেচেঁ যাবে ৷

মিজানের ঠিকানা হচ্ছে মালেশিয়ার কোয়ালালামপুরের 260 JALAN BUNGA TANJUNG -1 — মালেশিয়ায় সে যে বাড়িতে কাজ করে তার ছবি দেওয়া হয়েছে ৷ মালেশিয়ায় কোন মানবিক বাংলাদেশি মানুষ যদি থেকে থাকেন দয়া করে তার সাথে যোগাযোগ করে এই অসহায় মাত্র ২১ বছরের তরুনটির পাশে এগিয়ে আসুন ৷ কারো চোখের পানি মুছে দেওয়ার মধ্যেই পৃথিবীর সবছেয়ে বড় স্বার্থকতা ৷ মিজানের দেশের বাড়ি চাদঁপুর জেলার হাজিগন্জ থানার কালিরবাজার এলাকায় ৷

বিঃদ্রঃ- যারা মালেশিয়া প্রবাসি তারা পোষ্টটি শেয়ার করে সেখানে অবস্থানরত সকল বাংলাদেশির নজরে নিয়ে যাওয়ার অনুরোধ রইলো ৷

শওকত হোসেন—{ মানবিক পুলিশ ইউনিট সিএমপি }

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরো সংবাদ
Shares